Skip to content
Home » সুকান্ত ভট্টাচার্যের জীবনী | ৩য় পর্ব | সম্পূর্ণ জীবন কাহিনী | Sukanta

সুকান্ত ভট্টাচার্যের জীবনী | ৩য় পর্ব | সম্পূর্ণ জীবন কাহিনী | Sukanta

সুকান্ত ভট্টাচার্য জীবনী ৩য় পর্ব গল্প কবিতা রচনা সমগ্র pdf

ঙ. সংগঠক সুকান্তঃ

সুকান্ত যত বড় কবি তার চেয়ে বড় কর্মী ছিলেন। ‘কিশোরবাহিনী’ সংগঠন তার একটা বড় প্রমাণ। এই ‘কিশোরবাহিনী’ গঠনের মূল উদ্দেশ্য ছিল দুর্ভিক্ষের নিষ্ঠুর আক্রমণ থেকে আগামীদিনের নাগরিকদের টিকিয়ে রাখা। কোটি মানুষের হা অন্ন হা অন্ন রব শুনে সুকান্তরা বসে থাকে কি করে?

বিশেষত সুকান্তর চিন্তা ও চেতনার মূলে ছিল দেশপ্রেম। সেখানে জড়িত স্বদেশের মানুষের মুক্তি। পূর্বেই বলেছি সুকান্ত ছিলেন গঠনমূলক কাজের পক্ষপাতী । সেই শৈশবে একটা পরিত্যক্ত নোংরা মাঠ পরিষ্কার করে সাথীদের নিয়ে সুকান্ত গঠন করেন ‘ব্যাডমিন্টন ক্লাব ।’ বাড়ির বারান্দায় পাড়ার ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের বিনে পয়সায় পড়াবার জন্য খুলেছিলেন কোচিং ক্লাস। বেলেঘাটার নামকরা স্টুডেন্ট লাইব্রেরিটি যে কজন মিলে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন সুকান্ত তাঁদের অন্যতম।

অন্তর্ভুক্ত সমাজসেবার মনোভাব নিয়েই সুকান্তর জন্ম। তাই পরবর্তীকালে দেখা যায় সুকান্তর কবিসত্তা আর রাজনৈতিক সত্তা প্রবাহিত হয়েছে এক অভিন্ন ধারায়। এখানে কবি সুকান্তকে সেবক সুকান্ত থেকে পৃথক করা প্রায় অসম্ভব। পার্টির প্রতি সুকান্ত এত অনুরক্ত ছিলেন যে, শুনা যায়-চট্টগ্রামের সম্মেলন শেষে অর্থের অভাবে তিনি হেঁটে হেঁটে কলকাতার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেন।

‘জনযুদ্ধ’ পত্রিকাটি রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বিক্রয় করাকে বিপ্লবী কর্মকাণ্ডের বলে সুকান্ত মনে করতেন। সুকান্তর কর্তব্যনিষ্ঠা ছিল প্রবল। সুকান্তর কর্মব্যস্ততার একটা নমুনা চমৎকারভাবে ফুটে উঠেছে তাঁর বন্ধু অরুণকে লেখা চিঠিতে। সুকান্ত লিখেছেন, ‘টিকিট চারটে পাঠালাম (দাম প্রতিটি এক টাকা)। ডাক্তার আমাকে শয্যাগত করে রেখেছে, কাজেই তুই একমাত্র ভরসা।…আমি পরশু শ্যামবাজার যাচ্ছি । কাজেই দু’একটা কাজের ভার তোকে দিচ্ছি।”

২-২-৪৫’র লেখা চিঠিতে আছে-‘অরুণ/মনে আছে তো কাজ কিশোরবাহিনীর শারদীয় উৎসব?…আমি একটু ঘুরে যাব-কিনা।’

আর একটা চিঠি । তাও বন্ধু অরুণাচল বসুকে লেখা । ‘দোস্ত, কয়েকটা কারণে আমার তোর ওখানে যাওয়া হল না। যেমন-
(১) কিশোর বাহিনীর দুধের নতুন আন্দোলন শুরু হল। (১৪ই জুনের ‘জনযুদ্ধ’ দ্রষ্টব্য)।
(২) ১৫ই জুন A.I.S.F. Conf.
(৩) কিশোর বাহিনীর কার্ড এখনো ছাপা হয়নি। ছাপাব ।
(৪) ১৩ই জুন I.P.T.A.-এর অভিনয় শ্রীরঙ্গমে।
(৫) ১১ই জুন কিশোর বাহিনীর জরুরি মিটিং।
(৬) কিশোর বাহিনীর ৪নং চিঠি এ সপ্তাহে লিখতে হবে।
(৭) ১৬ই জুন আমাদের বাড়িতে বৌ ভাত ।
(৮) এখন আমার শরীর অত্যন্ত খারাপ।
তোদের ওখানকার কিশোর বাহিনীকে আমায় ক্ষমা করতে বলিস। নতুন আন্দোলনের জন্য রামকৃষ্ণ (শ্রী রমাকান্ত মৈত্র) আমায় ছাড়লো না।

তাই সঙ্গত কারণেই মনে প্রশ্ন ওঠে-অসুস্থ শরীরে, কম বয়সে, কম সময়ে এত কাজ যে করতে চায়, সে কি মৃত্যুর সাথে পূর্বেই একট বোঝাপড়া করে রেখেছিল?

আরও পড়ুনঃ সংস্কৃত নবরঙ্গ থেকে ইংরেজি Orange | কমলা | বাংলা ভাষার বিবর্তন

তথ্যসূত্রঃ 
১. ১৩৫৪ সালের ‘পরিচয় শারদীয়'তে শ্রীযুক্ত জগদীশ ভট্টাচার্য কর্তৃক লিখিত কবি কিশোর নামক প্রবন্ধের অংশবিশেষ।
২. বদরুদ্দীন উমর, ২৫শে বৈশাখ, ১৩৭৭, ঢাকা।
৩. বন্ধু অরুণাচলকে লেখা সুকান্তের দীর্ঘতম এক ঐতিহাসিক চিঠির অংশবিশেষ।
৪. মার্কসীয় অর্থনীতির মূল সূত্র : এল. লিয়ন তিয়েভ।
৫. সাহিত্য চর্চা, বুদ্ধদেব বসু ।
৬. রবি রশ্মি। চারু চন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায় এম. এ.।
৭. বাংলা সাহিত্যের খসড়া। শ্রী প্রিয় রঞ্জন সেন।
৮. সুকান্ত কবি ও মানুষ। সামাদ সিকদার। (ভূমিকার ক্ষেত্রে সামাদ সিকদারের সুকান্ত কবি ও মানুষ বইটি অনেক জায়গায় ব্যবহৃত হয়েছে। সামাদ সিকদারের কাছে ঋণ স্বীকার করছি।)
Tags:
x
error: Content is protected !!